মহিলাদের ফিঙ্গারিং কেনো দরকার

শুধুমাত্র যৌনসুখের জন্য নয়, শরীর-স্বাস্থ্য ভাল রাখার জন্যেও এই সুখবোধ খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং তা শুধুমাত্র পুুরষদের ক্ষেত্রে নয়, মহিলাদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য।

১) হস্তমৈথুনের ফলে শরীরে যে উত্তেজনা হয় তাতে ডোপামাইন এবং অক্সিটোসিন হরমোনের নিঃসরণ হয় যা মহিলাদের মন ভাল রাখে।

২) মেয়েরা এর মাধ্যমে নিজেদের শরীরকে আরও বেশি করে ভালবাসে। শরীরের প্রতি আরও বেশি যত্নশীল হয়।

৩) হস্তমৈথুন নিয়মিত করলে নিজেদের যৌনক্ষমতা নিয়ে আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায় মেয়েদের। তার ফলে বিছানায় সঙ্গীকে আরও বেশি সুখদান করতে সক্ষম হয়।

৪) রাতে শুতে যাওয়ার আগে হস্তমৈথুন করলে নার্ভ রিলাক্সড হয় এবং ঘুম আসে তাড়াতাড়ি। ভাল ঘুমও হয়।

৫) সঙ্গী যদি দূরে থাকে অথবা কোনও কারণে যদি সেক্স লাইফ সক্রিয় না থাকে তবে যৌন ইচ্ছা দমন না করে হস্তমৈথুন করা উচিত। নাহলে হৃৎপিণ্ডের উপরে চাপ পড়তে পারে। কাজে মনোঃসংযোগও নষ্ট হতে পারে।

৬) মেনস্ট্রুয়েশনের ফলে মেয়েদের তলপেটে ও শরীরের নানা অংশে যে যন্ত্রণা হয় তা দূর হতে পারে নিয়মিত হস্তমৈথুনে।

৭) স্ট্রেস দূর করতে নারী-পুরুষ দু’পক্ষের জন্যেই ভাল হস্তমৈথুন।

৮) ছেলেদের অর্গাজম এবং মেয়েদের অর্গাজম একই রকম হয় না। সঙ্গমের সময়ে ছেলেদের ইজাকুলেশন হয়ে যাওয়ার পরেও মেয়েদের অর্গাজম সম্পূর্ণ নাও হতে পারে। এর থেকে এক ধরনের অতৃপ্তি গ্রাস করে মেয়েদের। এই রকম সময়ে মেয়েদের হস্তমৈথুন করা ভাল।

৯) হস্তমৈথুনের কোনও সাইড এফেক্ট নেই মেয়েদের শরীরে। তাই মাল্টিপল অর্গাজমের জন্য মেয়েরা দিনে একাধিকবার হস্তমৈথুন করতেই পারেন।

১০) হস্তমেথুন বা মাস্টারবেশন বা ফিঙ্গারিং ফলে অর্গাজম ঠিক ভাবে করতে পারলে আপনার মুখের ব্রন ৬০% কমে যাবে।

১১) বিবাহিত আপুদের যাদের সেক্স লাইফ হ্যাপি না তাদের জন্য এই হস্তমেথুন বা মাস্টারবেশন বা ফিঙ্গারিং অনেক কাজে দেই। কারণ যাদের সেক্স লাইফ হ্যাপি না তারাই জানে তাদের সংসারে কত টা প্রব্লেমের তেরি হয়।

সাতসকাল ফিচার
সাতসকাল ই-পেপার
সাতসকাল নিউজ
error: Content is protected !!