পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীর যৌনাঙ্গে সেলাই করে দিল স্বামী

মহিলাদের ওপর অত্যাচার এখন এক নিয়মিত ঘটনায় পরিণত হয়েছে। আর এই ঘটনায় আপনি শিউরে উঠতে বাধ্য হবেন। মধ্যপ্রদেশের সিংরৌলি জেলায়, এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর যৌনাঙ্গে সেলাই করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ, কারণ সে সন্দেহ করেছিল যে স্ত্রী তার সাথে প্রতারণা করছে। তবে অবাক হবেন এটি জেনে যে সেই মহিলা পুলিশকে তার স্বামীর বিরুদ্ধে কোন কঠোর ব্যবস্থা না নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন।

গ্রেফতার না করে, তার স্বামীকে তিরস্কার করার অনুরোধ করেছেন ঐ  নির্যাতিতা। 

একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে যে, তিনি পুলিশকে অনুরোধ করেছিলেন যে তার স্বামীকে শুধু বকাঝকা করুন যাতে তিনি এর পুনরাবৃত্তি না করেন। সিংরৌলির সহকারী পুলিশ সুপার অনিল সোনকার জানিয়েছেন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে যদিও এই ব্যক্তি বর্তমানে পলাতক। 

পাশাপাশি এই বছরের শুরুর দিকে, এই ধরণের আরেকটি ভয়াবহ ঘটনা সামনে আসে, উত্তর প্রদেশের এক ব্যক্তি অবৈধ সম্পর্কে জড়িত থাকার সন্দেহেতার স্ত্রীর যৌনাঙ্গকে একটি অ্যালুমিনিয়াম সুতো দিয়ে সেলাই করেন। ঘটনাটি ঘটেছিল উত্তরপ্রদেশের রামপুর জেলার মিলাক এলাকায়, যখন এক স্বামী তার স্ত্রীকে বিশ্বস্ততা পরীক্ষা দিতে বলেন। স্ত্রীর এই পরীক্ষায় অংশ নিতে রাজি হলে, লোকটি তার হাত -পা বেঁধে তার যৌনাঙ্গ সেলাই করে দেয়। এরপর লোকটি এলাকা ছেড়ে পালায়। একটি প্রতিবেদন অনুসারে, এই ঘটনার পর ২৪ বছর বয়সী স্ত্রী তার মায়ের সাথে যোগাযোগ করেন, যিনি তখন তাকে একটি কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে নিয়ে যান এবং তার জামাই-এর বিরুদ্ধে মিলাক থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর মহিলার একটি মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হয় যা হামলার বিষয়টিকে নিশ্চিত করেছে। রামপুরের পুলিশ সুপার নিশ্চিত করেছেন যে মহিলা গুরুতর আঘাত পেয়েছেন এবং আশ্বস্ত করেছেন যে তাকে যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া হবে। পুলিশ আরও জানিয়েছে যে ঐ দিনই অভিযুক্তকেও হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

সাতসকাল ফিচার
সাতসকাল ই-পেপার
সাতসকাল নিউজ
error: Content is protected !!