অবৈধ সম্পর্কের জের, মায়ের হাতে ছেলে খুন

ঘন্টু বন্দ্যোপাধ্যায়: অবৈধ সম্পর্কের ঘটনা জানাজানি হওয়াতে নিজের মায়ের হাতে খুন হতে হলো ছেলেকে। মৃত ছেলের নাম সুদীপ মাইতি ,বছর কুড়ির মত বয়স। ঘটনাটি পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সিদ্ধার দিগলাবার গ্রামে। রবিবার পাঁশকুড়া থানায় অভিযোগ অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পাঁশকুড়া থানার পুলিশ ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে। এলাকার প্রতিবেশীরা অভিযোগ করেন নিজের ছেলেকে বিষ খাইয়ে মেরে ফেলে ওই মহিলা। কাউকে কোন কিছু না জানিয়ে গোপনে ওই মৃতদেহ সৎকার ও করে দেওয়া হয়েছে বলে খবর। প্রতিবেশীদের অভিযোগ ওই মহিলার সঙ্গে অন্য একটি ছেলের অবৈধ সম্পর্ক গড়ে উঠে। এই সম্পর্কের কথা প্রাপ্তবয়স্ক যুবক সুদীপ মাইতির কানে যায়। রাতে নিজের মা খাবারের সঙ্গে বিষ মাখিয়ে মেরে ফেলে বলে অভিযোগ। প্রতিবেশীদের কাছ থেকে জানা যায় ছেলেটি ছিল নম্র ও ভদ্র। এই ঘটনাকে সামনে রেখে আজ অর্থাৎ রবিবার ওই মহিলা কে মারধর ও করা হয়। । পাড়া-প্রতিবেশীদের অভিযোগ ওই মহিলার জন্য সমাজে অন্য এক বার্তা যাচ্ছে। গ্রামগঞ্জে এরকম নোংরা জিনিস করা চলবে না বলেও পাড়া-প্রতিবেশীরা পরিবারের উদ্দেশ্যে বলছে। ওই মহিলার স্বামী দিলীপ মাইতি পাশের একটি গ্রামে দোকানে কাজ করে। দিলীপবাবু সাদাসিধে মানুষ। দীলিপবাবু ও বলছেন ছেলেকে মেরে ফেলা হয়েছে। প্রতিবেশীরা এর পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করার আর্জি জানিয়েছে। পাঁশকুড়া থানার পক্ষ থেকে জানা যায় এ বিষয়ে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। সমগ্র ঘটনায় দিকলাবার গ্রামে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সাতসকাল ফিচার
সাতসকাল ই-পেপার
সাতসকাল নিউজ
error: Content is protected !!