অস্তিত্বের সংকটে ইউক্রেন, রুশ মিসাইল আছড়ে পড়ল ইউরোপের সবচেয়ে বড় পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্ল্যান্টে

সাতসকাল ওয়েব ডেস্ক: রাশিয়া ইউক্রেন সংঘর্ষের নবম দিনেই ইউরোপের সর্ববৃহৎ পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্ল্যান্টে আঘাত হানলো রুশ মিশাইল। ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে আগুন ধরে যায় ওই বিদ্যুৎ প্ল্যান্টে। তারপরেই গোটা এলাকা জুড়ে তেজস্ক্রিয়তার পরিমাণ বাড়তে শুরু করে।

শুক্রবার সকালেই জাপোরিজিয়া পরমাণু বিদ্যুত উৎপাদন কেন্দ্রের মুখপাত্র জানান, রাশিয়ার ইউরোপের বৃহত্তম পরমাণু বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে মিসাইল হামলা চালিয়েছে। সেখানে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছে এখনও। বিদ্যুৎ উৎপাদনও বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রী দিমিট্রো কুলেবাও হামলার কথা জানিয়ে দ্রুত সংঘর্ষবিরতি ঘোষণার দাবি জানান।

তিনি টুইট করে বলেন, “রাশিয়ার সেনা জাপোরিজিয়াকে চারিদিক থেকে ঘিরে ফেলেছে এবং লাগাতার আক্রমণ চালাচ্ছে। জাপোরিজিয়ার পরমাণু বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে হামলা চালিয়েছে তারা, ইতিমধ্যেই গোটা প্ল্যান্টে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। যদি পরমাণু কেন্দ্রে বিস্ফোরণ হয়, তবে পারমাণবিক বিপর্যয় হতে পারে। রাশিয়ার উচিত এখুনি সংঘর্ষবিরতি ঘোষণা করা। দমকল বাহিনীকে ওই এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হোক এবং গোটা এলাকাকে সুরক্ষিত করা হোক।”

ওই পরমাণু কেন্দ্রের একটি ভিডিয়োও ভাইরাল হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে বিস্ফোরণের পর গোটা আকাশ আগুনের ঝলকানিতে আলোকিত হয়ে উঠছে এবং ঘন কালো ধোঁয়ায় গোটা আকাশ ঢেকে যাচ্ছে।

এর আগেই আন্তর্জাতিক অ্যাটোমিক শক্তি সংস্থার তরফে সতর্ক করে জানানো হয়েছিল যে দক্ষিণ ইউক্রেনের এনেরহোডার শহরে ঢুকে পড়েছে রুশ সেনা।  এখনই যদি তাদের আটকানো না হয়, তবে নিউক্লিয়ার বিপর্যয় ঘটতে পারে।

বৃহস্পতিবার বেলারুশ সীমান্তে দুই পক্ষের মধ্যে বৈঠকে মানবিক করিডর তৈরির প্রস্তাবে সহমত পেশ করা হলেও, রাতেই লিভিভের জাপোরিজিয়া পরমাণু বিদ্যুতৎ উৎপাদন কেন্দ্রে হামলা চালায় রাশিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


টাচ করুন, দেখুন আপনার প্রিয় অভিনেত্রীদের অসাধারণ সব ফটো


error: Content is protected !!