প্রধানমন্ত্রীকে খুনের চেষ্টা, গ্রেফতার দুই

সাতসকাল ওয়েব ডেস্ক: মণিপুর বিধানসভা নির্বাচনের আগে মণিপুরের একটি নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দেওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর জনসভার ঠিক আগেই কাংপোকপি এলাকা থেকে বিস্ফোরক সহ গ্রেপ্তার দুই সন্ত্রাসবাদী।

পুলিশ সূত্রে খবর, মূলত ভিভিআইপি রাজনৈতিক ব্যক্তিদেরই লক্ষ্য বানিয়েছিল এই সন্ত্রাসবাদীরা। নির্বাচনের আগে সে রাজ্যে প্রচার চালাচ্ছেন অতি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক নেতা নেত্রীরা। তাঁদের উপরেই হামলা চালানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল। সূত্রের খবর, ইম্ফল থেকে কাংপোকপি যাওয়ার পথে একটি ভিভিআইপি রাজনৈতিক কনভয় বিস্ফোরক দিয়ে উড়িয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করেছিল ওই জঙ্গিরা৷ পুলিশের অনুমান নরেন্দ্র মোদীর কনভয়েই বিস্ফোরন ঘটানো হত। ওই দুই সন্ত্রাসবাদীর কাছে থেকে আইইডি অর্থাৎ অতিমাত্রায় বিস্ফোরক ডিভাইস উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যাচ্ছে ওই দুই সন্ত্রাসবাদী ন্যাশানাল সোসালিষ্ট কাউন্সিল অফ নাগাল্যান্ড নামক বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনের সদস্য। ধৃতদের জেরা করে তাদের পরবর্তী পরিকল্পনা এবং কাদের লক্ষ্য বানানো হচ্ছে তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। ধৃতদের সেকমাই থানায় নিয়ে আসা হয়। ওই দুই সন্ত্রাসবাদীর গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে থানায় আক্রমণ চালায় ওই সংগঠনের সমর্থক এবং সদস্যরা। অবশেষে কাঁদানে গ্যাস এবং শূন্যে গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মণিপুরের বিধানসভা নির্বাচন দুই দফায় হওয়ার কথা ছিল ২৭ ফেব্রুয়ারি এবং ৩ মার্চ। কিন্তু পরে ভোটের তারিখ পরিবর্তন করা হয়। নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয় ওই দুদিনের পরিবর্তে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি এবং ৫ মার্চ ভোটগ্রহণ হবে। ফলে শেষ মুহুর্তের প্রচারের ব্যস্ততা তুঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলির। এহেন পরিস্থিতিতে এই বিস্ফোরণের পরিকল্পনার কথা সামনে আসায় কার্যতই আতঙ্ক ছড়িয়েছে। কোথায় দাঁড়িয়ে ভিভিআইপি নেতা নেত্রীদের নিরাপত্তা, উঠছে প্রশ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


টাচ করুন, দেখুন আপনার প্রিয় অভিনেত্রীদের অসাধারণ সব ফটো


error: Content is protected !!