শিবরাত্রিতে রাজবাড়ি হয়ে ওঠে চাঁদের হাট

কল্যাণ দত্ত, পূর্ব বর্ধমান: সামনেই শিবরাত্রি। শিবরাত্রির দিন মহাদেবের মাথায় জল ঢেলে পূণ্য অর্জন করে থাকেন অনেকেই। শিবরাত্রির দিনটা শিব ভক্তদের কাছে উত্‍সবের থেকে কম কিছু নয়। এদিন শিব ভক্তরা নিজেদের মনোবাঞ্ছা নিয়ে হাজির হয় মহাদেবের দরবারে। ১০৮ শিব মন্দির, বর্ধমানেশ্বর মন্দির মহাদেবের ভক্তদের কাছে একটি অতি পরিচিত একটি স্থান।
কিন্তু অনেকেই হয়তো  জানেন না, বর্ধমানেই রয়েছে মহাদেবের বহু পুরনো একটি স্থান, যা মহারাজ উদয়চাঁদ মহাতাবের প্রতিষ্ঠিত মন্দির। প্রায় সাড়ে ৩৫০ বছর পুরোনো এই ভুবনেশ্বর শিব মন্দির । বর্ধমান রাজবাড়ির চত্বরেই প্রতিষ্ঠিত ভুবেনেশ্বর শিব মন্দির।
জানা যায় প্রথমে শিবলিঙ্গ মাটি ফুঁড়ে উঠেছিল এখানে । তারপর স্বপ্নাদেশ পান মহারাজ উদয়চাঁদ মহাতাব। তারপরই তিনি প্রতিষ্ঠা করেন শিবলিঙ্গ। এরপর থেকেই পূজিত হন ভুবেনেশ্বর।
যা আজও বহু শিব ভক্তের কাছেএকটি আদর্শ স্থান। স্থানীয়দের কাছে ভুবেনেশ্বর হল শিব স্বয়ংভু। আজও শিবরাত্রির দিন সাজানো হয় ভুবনেশ্বর শিব মন্দির। অগণিত ভক্ত আসেন এখানে ।
রাজবাড়িতে দুর্গাপুজো, রথ, ঝুলনের মত ধুমধাম করেই পালিত হয় শিবরাত্রি। ঐতিহ্য মেনে মন্দিরের সেবায়িতরা আয়োজন করেন শিব পুজোর । এদিন সকাল থেকেই শিব ভক্তদের ভিড় থাকে চোখে পড়ার মতো। বছরের অন্যান্য দিন রাজবাড়ির চত্বর ফাঁকা থাকলেও , দুর্গাপুজো, রথ, ঝুলন এর মত শিবরাত্রিতেও রাজবাড়ি হয়ে ওঠে চাঁদের হাট। শিবরাত্রির উত্‍সবে মেতে ওঠেন সকলে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


টাচ করুন, দেখুন আপনার প্রিয় অভিনেত্রীদের অসাধারণ সব ফটো


error: Content is protected !!